আপনার হুরুব আছে কিনা চেক করুন

দেশে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো,নতুন খবর

 দেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এখনো কমেনি।

 বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভাইরাসটি এখনো বেশ বিপজ্জনক। 

সবাইকে তাই যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে।



আজ ১৫ এপ্রিল  (বৃহস্পতিবার) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সংবাদ থেকে এসব তথ্য জানা যায়।


এতে জানা যায়, দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৪ হাজার  ১৯২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর ফলে দেশে ক’রোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৭ লক্ষ  ৭ হাজার ৩৬২ জন।







এছাড়া করোনায় নতুন করে মারা গেছেন আরো ৯৪ জন। এ নিয়ে দেশে ক’রোনায় মৃত্যু হলো মোট ১০,০৮১ জনের।গতকাল প্রাণহানি হয়েছিলো ৯৬ জনের।


গত ২৪ ঘন্টায় ১৯,৯৫৬ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়ালো ৫১ লক্ষ ১৫ হাজার ৩১২ টি।


এছাড়া ক’রোনা ভাইরাস থেকে আজ আরো ৫,৯১৫ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এর ফলে এখন পর্যন্ত ক’রোনা থেকে সুস্থ হলেন ৫ লক্ষ ৯৭ হাজার ৭১৪ জন।

অন্যদিকে, বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব অব্যাহত রয়েছে।  বর্তমানে বিশ্বব্যাপী চলছে ক’রোনার দ্বিতীয় ঢেউ। ক’রোনার জন্য বেশ কয়েকট টিকা আবিষ্কার এবং অনেক দেশেই গণহারে টিকাদান শুরু হলেও এখনো স্বস্তিতে নেই বিশ্ববাসী।









এরই মধ্যে বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৯ লাখ ৮৪ হাজার এবং আক্রান্ত হয়েছে ১৩ কোটি ৮৮ লাখেরও বেশি মানুষ।


করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, ১৫ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৫১৩ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ৩ হাজার ১৯৪ জন।

এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ৮৩ হাজার ৯০১ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ কোটি ৮৮ লাখ ২০ হাজার ১৬৬ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ কোটি ১৬ লাখ ৫ হাজার ২২০ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২১ লাখ ৪৯ হাজার ২২৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৯২ জনের।






আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৪০ লাখ ৭০ হাজার ৮৯০ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ৭৩ হাজার ১৫২ জন।

Source  /  Bengali Ministry of Health

উৎস বাঙালি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন

نموذج الاتصال